মেঘনা ভিলেজ হলিডে রিসোর্ট – মুন্সীগঞ্জ

ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা ব্রীজের পরে মেঘনা ব্রীজ থেকে মাত্র ১ কিলোমিটার দূরে মুন্সীগঞ্জ জেলার বালুয়াকান্দিতে অবস্থিত মেঘনা ভিলেজ হলিডে রিসোর্ট (Meghna Village Holiday Resort)। রাজধানী ঢাকার খুব কাছেই এই মেঘনা ভিলেজ হলিডে রিসোর্ট এর অবস্থান হওয়ায় একদিনের ট্যুরের জন্য উপযুক্ত একটি বিনোদন কেন্দ্র।

দারুণভাবেই সাজানো হয়েছে রিসোর্টটির মেইন গেট দিয়ে ঢুকেই সুসজ্জিত রিসিপশন। প্রথমেই চোখে পরবে সুন্দর করে সাজানো ডাইনোসর, মাছ এবং বাঘের প্রতিকৃতি গুলো।

রিসোর্টে ঢুকে ডান দিক দিয়ে হাঁটলে চোখে পরবে একটি মিনি চিড়িয়াখানা। যেখানে আছে বানর, চিত্রা হরিণ, কালিম পাখি, খরগোশ, লজ্জাবতী হনুমান, কোয়েল পাখি, কুমির, কাছিমসহ অনেক কিছু। এরপর রিসোর্টের মাঝে একটি সুন্দর বাগান সহ মাঠের। বসার সুব্যবস্থা আছে এখানে। এছাড়াও ছোট করে একটি লেক।

পেন্ডুলাম পাইরেট শিপ, মেরিগো রাউন্ড, প্যাডেল বোট, ব্যাটারী কার, নাগরদোলা, সাইকেল চালনা এবং মিকি মাউস বাইক ইত্যাদি রাইডগুলো নিয়ে একটি মিনি পার্ক, যেটা মূলত বাচ্চাদের জন্যই। বাচ্চাদের সময় বেশ ভালোই কাটবে এখানে। এই রাইডগুলো উপভোগ করতে ১০ টাকা থেকে ৩০ টাকা হারে ফি প্রদান করতে হয়। আর ২০ আসনের ৩ডি সিনেপ্লেক্সে ঢুকতে খরচ হবে জনপ্রতি ৩০ টাকা।

এখানে রয়েছে বিশাল দুটি পানির ফোয়ারা, বটতলা, ব্যাডমিন্টন কোর্ট ও সুইমিং পুল। যারা মাছ ধরতে পছন্দ করেন তাদের জন্য রয়েছে দুটি পুকুরে মাছ ধরার বিশেষ আয়োজন। খেলা ধুলার জন্য রয়েছে বড় মাঠ যেখানে পরিবারের সকলকে নিয়ে মেতে উঠতে পারবেন ফুটবল, ক্রিকেট, ব্যাডমিন্টন ও অন্যান্য খেলার আনন্দে।

খাদ্য রসিকদের জন্য এখানে রয়েছে খাবারের নানান আয়োজন। দেশি-বিদেশি নানা রকমের খাবারের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। রয়েছে বারবি কিউ কিচেন ও বারবি কিউ গার্ডেন। আরো আছে ক্যাজওয়ে ব্রিজ, গার্ডেন রেস্টুরেন্ট, স্ন্যাক্স কর্নার ও কপি শপ, পিকনিক কিচেন। পিকনিক আয়োজন করার সকল সুযোগ-সুবিধা রয়েছে এখানে।

এ রিসোর্টের অন্যতম আকর্ষণীয় দিক হলো, এর ভেতরে আছে জামদানি ও মিষ্টির কারখানা। দেখে নিতে পারেন কীভাবে তৈরি হচ্ছে উন্নত মানের হরেক রকম মিষ্টি ও দই। যাবার সময় এখান থেকে বাড়ির জন্য দই-মিষ্টি কিনে নিতে ভুলবেন না। আর জামদানির বুনন দেখে পছন্দমতো কারখানা থেকেই কিনে নিতে পারেন জামদানি শাড়ি।

থাকার জন্য এখানে রয়েছে সুন্দর সুন্দর সব কটেজ। এখানে ১০ টি কটেজ রয়েছে। এই কটেজগুলো দারুণ সুন্দর ফুলের বাগান দিয়ে ঘেরা। নেপালি কায়দার এই চমৎকার কটেজগুলোতে চাঁদনী রাতে কাটাতে পারবেন দারুণ কিছু মুহূর্ত।

বুকিং সহ যোগাযোগ –

অগ্রিম বুকিং করতে চাইলে – ০১৭১২২০৩৩৩৬। বিস্তারিত তথ্যের জন্য – ০১৭১৮৪৭১৯৬১, ০১৮১৭ ১০৪১২৬।

ঢাকা থেকে বুকিং দিতে চাইলে: সুইট – ৫১২এ, লেভেল ৫, ইব্রাহিম ম্যানশন, ১১ পুরানা পল্টন, ঢাকা। ফোন: ০২-৯৫৭০৭৮২, ০১৫৫২-৩০৮৮৪৯, ০১৫৫২-৩৩৩৫৬৩, ০১৭১৮৪৭১৯৬১ (রিসোর্ট)

ওয়েবসাইট: meghnavillage.com
ফেইসবুক: fb.com/meghvillresort

মেঘনা ভিলেজ কিভাবে যাবেন

ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে যেতে হবে কাঁচপুর ব্রিজ। সেখান থেকে সোজা সোনারগাঁ হয়ে মেঘনা ব্রিজ। মেঘনা ব্রীজ পার হয়ে বালুকান্দি বাসস্ট্যান্ড থেকে বাম দিকের পথ ধরে ১ কিলোমিটার এগুলেই মেঘনা ভিলেজ রিসোর্ট এর দেখা মিলবে। এছাড়া আপনি চাইলে রিসোর্টের নিজস্ব গাড়িতে করেও রিসোর্টে যেতে পারবেন। সেজন্য ১,৫০০+ টাকা খরচ পড়বে।

মেঘনা ভিলেজ এর খুব কাছেই আছে পানাম নগর, সোনারগাঁ জাদুঘর, তাজমহল সহ আরা বেশ কিছু দর্শনীয় স্থান।

তথ্য সংগ্রহ ও উপস্থাপনায়: ভ্রমণ পাগল,
সর্বশেষ আপডেট হয়েছে: নভেম্বর 29, 2019

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.