নিউজিল্যান্ড পাড়া – খাগড়াছড়ি

নিউজিল্যান্ড পাড়া!!! নামটা একটু অপরিচিত, তাই না। আমারা বিভিন্ন সময় শুনেছি “বাংলাদেশ” নামেও গ্রাম আছে ভারতের কাশ্মির সহ বেশ কিছু দেশে। এই নামগুলোর শোনার পর সবারই মনে হওয়ার কথা, হয়তো এই গ্রাম বা এলাকায় ঐদেশের অধিকাংশ নাগরিক বসবাস করে।

শুনতে অদ্ভুত হলেও সত্যি বাংলাদেশের খাগড়াছড়ি থেকে ১.৫ কিলোমিটার দক্ষিণে পানখাইয়া পাড়ার পাশে এই নিউজিল্যান্ড পাড়ার (Newzeland Para) নামের পিছনে তেমন কোন কারন নেই। শুধু তাই নয় পানখাইয়া পাড়ার থেকে বেড়িয়ে আপার পেরাছড়া গ্রামের দিকে যাওয়ার রাস্তাটাই হলো সেই নিউজিল্যান্ড সড়ক।

সড়কের দুই পাশে দিগন্ত জোড়া সবুজ ক্ষেত খামার, এটাই খাগড়াছড়ির একমাত্র সমতল ভূমি। বিস্তৃত সবুজ শস্যখেত আর দূরের পাহাড়ের সারির মিতালি এখানে এক নান্দনিক সৌন্দর্যের সৃষ্টি করেছে। আর এই জন্যই জায়গাটি আলাদাভাবে পর্যটকদের নজর কেড়েছে। মূলত পানখাইয়া পাড়া আর পেরাছড়ার কিছু অংশ নিয়েই নিউজিল্যান্ড পাড়া গঠিত। যেন অস্ট্রেলিয়া মহাদেশের এক টুকরো নিউজিল্যান্ড ঠাই নিয়েছে বাংলার বুকে।

লোক মুখে শোনা যায়, অনেক অনেক বছর আগে এক পাহাড়ি ভদ্রলোক এই এলাকা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় বলেছিলেন, নিউজিল্যান্ডের মতো বাতাস সেই থেকে নাকি এলাকার নাম হয়ে গেছে নিউজিল্যান্ড পাড়া।

শহরের মাঝে তবুও যেন ইট-পাথরের শহর নয়। অনিন্দ্য সুন্দর প্রকৃতির এক অনবদ্য রূপ এই এলাকা। দৃষ্টি সীমানায় শুধু সবুজ আর সবুজ। কোথাও সবুজ ধানক্ষেত, আবার কিছু এলাকা একেবারে ন্যাড়া, দূরে কিছু বাড়িঘর, আরো দূরে দাঁড়িয়ে আছে সারি সারি উঁচু পাহাড়। এমন চমৎকার দৃশ্যের দেখা মিলবে নিউজিল্যান্ড পাড়ায়। শেষ বিকেলের ঝিরি ঝিরি বাতাস আপনাকে নিমিষেই চাঙ্গা করে তুলবে।

এখানকার প্রকৃতিতে গাড় সবুজ পাহাড়, দূরে ঝিরঝির শব্দের ঝর্ণা, ওপরে সুনীল আকাশ, মাঝে মাঝে শুভ্র মেঘ, গোধূলির অস্তমিত লাল সূর্যের আভা সবকিছু মিলেমিশে একাকার হয়ে এক অপার্থিব সৌন্দর্যের জন্ম দিয়েছে। এখানে এক অসাধারণ বিকেল উপভোগ করতে পারবেন আপনি। চারপাশের এই সবুজ স্নিগ্ধ রূপ আপনাকে বিমোহিত করবে। দিগন্ত বিস্তৃত এই সবুজ ক্ষেত, পাহাড়, সুনীল আকাশ আর মেঘের মিতালী আপনার মনে বর্ণিল জাদুর ছোঁয়া এঁকে যাবে।

খাগড়াছড়ি শহরের পাশ দিয়ে সর্পিল এঁকে বেঁকে বয়ে যাওয়া চেঙ্গী নদীর লালচে ঘোলা পানি কর্ণফুলী নদীর সাথে মিলেমিশে একাকার। মাঝে মাঝে নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর বৈচিত্র্যময় জীবনধারা, কোথাও সবুজের চাদরে মোড়ানো জুম চাষের ক্ষেত- এখানকার সৌন্দর্যে এনে দিয়েছে ভিন্নমাত্রা। তাই খাগড়াছড়ি বেড়াতে গেলে অবশ্যই ঘুরে আসবেন বাংলার নিউজিল্যান্ড খ্যাত ‘’নিউজিল্যান্ড পাড়া’’।

কিভাবে যাবেন নিউজিল্যান্ড পাড়া ?

ঢাকা থেকে সেন্টমার্টিন, শ্যামলী, হানিফ, শান্তি পরিবহন ও অন্যান্য পরিবহনের বাসে চড়ে খাগড়াছড়ি যেতে পারেন। ভাড়া পড়বে ৪৭০ থেকে ৫২০ টাকা। এছাড়া বিআরটিসি পরিবহনের বাসে চড়েও যেতে পারেন খাগড়াছড়ি।

এরপর খাগড়াছড়ি শহর থেকে সিএনজি বা অটোতে করে নিউজিল্যান্ড পাড়া যেতে পারবেন, ভাড়া পড়বে ১০ টাকার মত। তাই আপনি সাজেক ভ্রমণের প্লান করলে অল্প সময়েই ঘুরে আসতে পারবেন নিউজিল্যান্ড পাড়া থেকে।

কোথায় থাকবেন:

খাগড়াছড়িতে পর্যটন মোটেলসহ বিভিন্ন মানের থাকার হোটেল রয়েছে।

  • পর্যটন মোটেল: মোটেলের সব কক্ষই ২ বিছানার। ভাড়া: এসি ২১০০ টাকা, নন-এসি ১৩০০ টাকা। এসি স্যুইট রুম ৩১০০ টাকা। যোগাযোগ: ০৩৭১-৬২০৮৪৮৫।
  • হোটেল ইকো ছড়ি ইন: এটি রিসোর্ট টাইপের হোটেল। যোগাযোগ: ০৩৭১-৬২৬২৫, ৩৭৪৩২২৫।
  • হোটেল শৈল সুবর্ণ: ০৩৭১-৬১৪৩৬, ০১১৯০৭৭৬৮১২।
  • হোটেল জেরিন: ০৩৭১-৬১০৭১।
  • হোটেল লবিয়ত: ০৩৭১-৬১২২০, ০১৫৫৬৫৭৫৭৪৬।
  • হোটেল শিল্পী: ০৩৭১-৬১৭৯৫।
তথ্য সংগ্রহ ও উপস্থাপনায়: ভ্রমণ পাগল,
সর্বশেষ আপডেট হয়েছে: ডিসেম্বর 5, 2019

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.