ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্ক – ঢাকা

আপনি যদি হঠাৎ কর্মব্যস্ত নাগরিক জীবনে হাঁপিয়ে ওঠেন আর নগরের যান্ত্রিক কোলাহল থেকে নিরিবিলি ছায়া ঘেরা পরিবেশে কিছু সময় কাটিয়ে আসতে চান তাহলে ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার খুব কাছেই ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্ক (Wonderela Green Park) থেকে।

ঢাকা গুলিস্তান থেকে সড়ক পথে মাত্র ৪৮ কি.মি দূরে ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্কটি প্রচুর গাছপালা আর সবুজ পরিবেশের ঘেরা।  ২০১৭ সালে ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার দোহার সড়ক সংলগ্ন ৯০ বিঘা বিস্তৃত সবুজে ঘেরা পরিবেশে সুন্দর এই ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্টি প্রতিষ্ঠিত হয়।

এখানে একসাথে ইকো এগ্রো টুরিজম, ন্যাশনাল হেরিটেজ পার্ক ও থিম পার্কের এর স্বাদ নিতে পারবেন। শিশু – কিশোর, তরুণ-তরুণী ও বয়োজেষ্ঠ সহ পরিবারের সবার এবং সর্বস্তরের মানুষের জন্য নির্মল বিনোদনে জন্য ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্ক হতে পারে অন্যতম মাধ্যম।

দিগন্তজোড়া সবুজের মাঝে রয়েছে সারি সারি ফুল – ফলের বাগান, হেঁটে চলার প্রশস্ত রাস্তা, জলাধার ও পর্যাপ্ত পরিমাণে বসার ব্যবস্থা। এখানে রয়েছে চারটি ভিন্ন ভিন্ন পিকনিক স্পট। যেখানে আপনার চাইলে এখানে প্রাতিষ্ঠানিক কিংবা ফ্যামিলি ট্যুর করতে পারবেন।  ট্রেন, প্যাডেল বোট,  সোনার তরী, সুইং চেয়ার সহ নানা রকমের  বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে পার্কের ভিতর। 

কিভাবে যাবেনঃ

ঢাকা গুলিস্তান থেকে নবাবগঞ্জগামী যমুনা গিলাক্স, এন. মল্লিক ও বিআরটিসি বাসে করে চলে আসতে পারেন নবাবগঞ্জ। 

নবাবগঞ্জ  থেকে বান্দুরা সড়ক ধরে, একটু সামনেই বিদ্যুৎ অফিসের সাথেই রয়েছে ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্ক। অথবা বাসের হেলপারকে নবাবগঞ্জ পল্লিবিদ্যুৎ নামিয়ে দিতে বললেও হবে। এন মল্লিক” এর ভাড়া-৫৫/৬৫ টাকা ।বিভিন্ন জেলা থেকে ওয়ান্ডারেলা গ্রীন পার্ক আসতে হলে প্রথমে ঢাকায় আসতে হবে। তারপর ঢাকায় থেকে নবাবগঞ্জ এবং নবাবগঞ্জ   বিদ্যুৎ অফিসের পাশেই এই পার্ক।

পার্কে ঢোকার জন্য ৫০ টাকা করে টিকিট কাটতে হবে। তবে প্যাকেজে ১০০ টাকায়  টিকিট কাটলে আপনি তিনটি ফ্রী রাইড উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও অন্যান্য রাইডে চড়ার জন্য ৩০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যেই টিকিট কাটতে পারবেন।

এখানে খাবার জন্য তেমন কোনো ব্যবস্থা না থাকলেও চটপটি-ফুচকা সহ বিভিন্ন নাস্তার আইটেম পাবেন। তবে আপনি যদি স্কুল কলেজ কিংবা ফ্যামিলি গ্রুপ  নিয়ে পিকনিক করতে আসেন সে ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে খাবারের ব্যবস্থা করতে পারবেন। সেজন্য আপনাদের আগে থেকেই  যোগাযোগ করে আসতে হবে।

তথ্য সংগ্রহ ও উপস্থাপনায়: ভ্রমণ পাগল,
সর্বশেষ আপডেট হয়েছে: জুন 21, 2021

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.