শেখ রাসেল শিশু পার্ক – গোপালগঞ্জ

শেখ রাসেল শিশু পার্ক (Shek Rasel  Shisu /Children Park) গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার শিশু ও পরিবারসহ ঘুরে বেড়ানোর জন্য একটি জনপ্রিয় স্থান। পার্কের কাছেই মধুমতী নদী। চমৎকার পরিবেশে ফুলে ফুলে সাজানো পার্কটি সব বয়সী মানুষকে মুগ্ধ করবে। প্রতিদিনই শিশু-কিশোর-তরুণ-তরুনীসহ সব মানুষের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠে শেখ রাশেল শিশু পার্ক।

সাধারণত সরকারি ছুটির দিন শুক্র ও শনিবার এই দুই দিন মানুষের উপচেপড়া ভিড় থাকে পার্কটিতে। প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের সমাধি কিংবা সারাসরি শেখ রাসেল শিশু পার্কটি দেখতে আসা মানুষের সমাগম থাকে চোখে পড়ার মতো। সময় সব বয়সের মানুষের পদচারনায় পার্কটি মিলন মেলায় পরিনত হয়ে উঠে। গোপালগঞ্জ ছাড়াও পার্শ্ববতী খুলনা, বাগেরহাট, যশোর, নড়াইল, চিতলমারী, পিরোজপুর, চৌগাছা, সাতক্ষীরা ও মাগুরাসহ বেশ কয়েক জেলা উপজেলা থেকে দর্শনার্থিরা ভিড় করেন টুঙ্গিপাড়া শেখ রাসেল শিশু পার্কটি ।

৫.০০ একর জমির উপর স্থাপিত হয়েছে পার্কটি। পার্কে সর্বমোট রাইড রয়েছে ১৪টি। মেরীগো রাউন্ড-১টি, ওয়ান্ডার হুইল-১টি, মাল্টি স্লাইড-১টি, প্যাডেল বোর্ট-৪টি, সী-স-১টি, স্প্রীং গাড়ী-১টি, দোলনা-২টি, ফ্লাইবার-২টি।

শেখ রাসেল শিশু পার্কের প্রবেশমূল্য ১০/- (দশ) টাকা মাত্র। সকাল ৯.০০ টা থেকে বিকাল ৫.০০ টা পর্যন্ত সপ্তাহের ৭ দিনই খোলা থাকে।

কিভাবে যাওয়া যায়:

বাংলাদেশের যে কোন স্থান থেকে সড়ক পথে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া থানা পাটগাতি বাজার বাসস্ট্যান্ড। এখান থেকে মাত্র ১.২০ কি: মি: উত্তরে শেখ রাসেল পৌর শিশু পার্কের অবস্থান। সড়ক যোগে ইজিবাইক, ভ্যান, মাহেন্দ্র, টেম্পু যে কোন যান যোগে আসতে পারবেন এ শিশুপার্কে।ভাড়া ৫ টাকা।

তথ্য সংগ্রহ ও উপস্থাপনায়: ভ্রমণ পাগল,
সর্বশেষ আপডেট হয়েছে: এপ্রিল 14, 2018

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.